শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বঙ্গোপসাগরে ট্রলার ডুবির ঘটনায় মনপুরার ২ জেলের মৃত্যু ॥ ১ জেলে নিখোঁজ মহানবী ও ইসলাম ধর্ম অবমাননাকীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুঁ দন্ডের দাবিতে ভোলায় বিক্ষোভ সমাবেশ চতুর্থ বর্ষে পদার্পণ করলো অনলাইন নিউজ পোর্টাল “আমাদের ভোলা” শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা জাতিসংঘ মহাসচিবের লালমোহনে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ভোলার তজুমদ্দিনে ইয়ুথ পাওয়ার ইন বাংলাদেশ এর আয়োজনে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত ভোলায় মেঘনা-তেঁতুলিয়ার ভাঙনে দিশেহারা নদীতীরের মানুষ তজুমদ্দিনে পূর্ব শত্রুতার জেরে বসত ঘরে আগুন দেয়ার অভিযোগ রোহিঙ্গাদের অবশ্যই মিয়ানমারে ফিরে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী দাখিল পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর শুরু, একই দিন শুরু হতে পারে এসএসসি
ভোলার ধনিয়ার নুরুল ইসলাম অবৈধভাবে ৪৬০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক

ভোলার ধনিয়ার নুরুল ইসলাম অবৈধভাবে ৪৬০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক

নিজস্ব প্রতিবেদক

টেকনাফ স্থল বন্দরের চুক্তিভিত্তিক দৈনিক ১৩০ টাকা বেতনের নুরুল ইসলাম নামে এক কর্মচারী অবৈধভাবে ৪৬০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন।নুরুল ইসলাম ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম কানাইনগর গ্রামের দালাল বাড়ীর মতলব রাজের ছেলে।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‍্যাবের লিগ্যাল এন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন। তিনি বলেন, গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে নুরুল ইসলাম নামে ওই ব্যাক্তিকে আটক করে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এ সময় জব্দ করা হয় ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৫০০ জাল টাকা, ৩ লাখ ৮০ হাজার মিয়ানমার মুদ্রা, ৪ হাজার ৪০০ পিস ইয়াবা ও নগদ ২ লাখ ১ হাজার ১৬০ টাকা।
র‍্যাব জানায় ২০০১ সালে বন্দরে চাকরি নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে উঠে নুরুল ইসলামের। একপর্যায়ে গড়ে তোলেন সিন্ডিকেট। দালালি, পণ্য খালাস, পণ্যের আড়ালে অবৈধ মালামাল এনে অল্প সময়েই কোটি কোটি টাকার মালিক হয়ে যান এই কম্পিউটার অপারেটর।
সংবাদ সম্মেলনে কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, নামে বেনামে বিভিন্ন ব্যাংকে তার মোট ১৯ টি একাউন্ট রয়েছে। বর্তমানে তিনি জাহাজ ভাঙা শিল্প ও ঢাকার কাছাকাছি বিনোদন পার্কেও বিনিয়োগ করছেন। অবৈধ পন্থায় অর্জিত অর্থের মাধ্যমে ইতোমধ্যে ঢাকায় তার ৬ টি বাড়ি ও ১৩ টি প্লটের মালিক তিনি। এছাড়া তার সাভার, টেকনাফ, সেন্টমার্টিন, ভোলাসহ বিভিন্ন জায়গায় নামে-বেনামে সর্বমোট ৩৭ টি প্লট ও বাগানবাড়ি বাড়ি রয়েছে। অবৈধভাবে তার অর্জিত সম্পদের আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪৬০ কোটি টাকা।

Facebook Comments


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2020 ভোলা প্রতিদিন
Design & Developed BY ThemesBazar.Com