সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ১০:৩২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
পদ্মা সেতু দেখতে গিয়ে ট্রলার উল্টে নিখোঁজ ভোলার ছাত্রলীগ নেতার লাশ উদ্ধার নির্যাতিতদের সমর্থনে আন্তর্জাতিক সংহতী দিবস উপলক্ষে ভোলায় মানববন্ধন ও সমাবেশ দৌলতখান মৎস্যজীবী দলের কমিটি অনুমোদন সভাপতি সামছুদ্দিন সম্পাদক আলী বেপারী ভোলায় মুসুল্লী বেশে গণধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার নানা আয়োজনে ভোলায় আওয়ামী লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ভোলায় ট্রাফিক পুলিশের অভিযানে সিলিন্ডারযুক্ত ৪ সিএনজি আটক ভোলায় বিএনপি নেতা মরহুম ফারুক নিয়ার ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত ভোলায় নার্সারি থেকে দুইটি গাঁজা গাছ উদ্ধার, আটক- ১ ভোলায় ট্রলি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খাদে পড়ে নিহত ১, আহত ৩ ভারতে মহানবীর (সা.) অবমাননা : ভোলায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিক্ষোভে তৌহিদি জনতার ঢল
ভোলার ভেদুরিয়ায় খালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ পুলিশসহ আহত ২০

ভোলার ভেদুরিয়ায় খালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ পুলিশসহ আহত ২০

আশিকুর রহমান শান্তঃ ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের চর চটকিমারায় একটি খালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর এলাকার বাসিন্দাদের ও চর চটকিমারার বাসিন্দাদের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশসহ ২০ জন আহত । বৃহস্পতিবার (৯জুন) আনুমানিক দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটের সময় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতদের নাম ও পরিচয় তাৎক্ষণিক ভাবে জানা যায়নি। আহত সবাইকে স্থানীয় ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনো কাউকে আটক করতে পারেনি।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওয়াহিদ মিয়ার মালিকানা জমির উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত খালে ঐ এলাকার বাসিন্দা মোঃ আবুল কালাম মুন্সী গংদের ৯২ টি ছোট ও বড় ধরনের মাছ ধরার চাই দিয়ে তারা মাছ ধরতে ছিলেন । হঠাৎ করে মেহেন্দিগন্জ থানাধীন শ্রীপুর এলাকার সাখাওয়াত হোসেন কাজী ওরফে রুবেল কাজীর (৫২) নেতৃত্বে আবু কালাম মুন্সির মাছ ধরার ৯২ টি চাই ও একটি ধান মাড়াই যন্ত্র জোরপূর্বক নিয়ে যেতে চায়। আবুল কালাম মুন্সি রুবেল কাজীকে এগুলো কেন নিচ্ছে জিজ্ঞেস করে এবং এগুলো নিতে বাধা প্রদান করিলে সাখাওয়াত কাজী ওরফে রুবেল কাজীর নেতৃত্বে ৭০/৮০ জনের একটি গ্রুপ কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আবু কালাম মুন্সিদের উপর আক্রমণ করে বসে । এই আক্রমণের জের ধরে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং ইট পাটকেল নিক্ষেপ চলতে থাকে। এতে উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়।

এ বিষয়ে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পুলিশের একাধিক সূত্র থেকে জানা যায় যে , উভয়পক্ষের ভিতরে যখন সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া চলতেছিল তখন ঘটনার বিষয়টি পুলিশের কাছে পৌঁছায় । সংবাদ পেয়ে শ্রীপুর ক্যাম্পের ইনচার্জের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টহল টিম ঘটনা স্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চর চটকীমারা এলাকার বাসিন্দাদের সেখান থেকে যার যার বাড়িতে চলে যেতে বলেন। পুলিশ এ কথা বললে চর চটকিমারার বাসিন্দারা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। কিন্তু শ্রীপুর এলাকার বাসিন্দারা সেখান থেকে সরে না গিয়ে বরং তারা শ্রীপুরের চরফেনুয়া গ্রামের বাসিন্দা আঃ রশীদ কাজীর ছেলে সাখাওয়াত হোসেন ওরফে রুবেল কাজী (৫২) ও মেহেন্দিগন্জের মিয়ার চরের বাসিন্দা মোসলেম জমাদ্দার এর ছেলে হাসান জমাদ্দার (৩৩) এর নেতৃত্বে ৭০/৮০ জন লোক লাঠি ও ইটের টুকরা নিয়ে পুলিশের উপর আক্রমন চালায় । এক পর্যায় আত্মরক্ষা ও আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ বাধ্য হয়ে শর্ট গানের রাবার বুলেট ২৬ টি ও শিশার ২ টি সহ মোট ২৮ রাউন্ড ফায়ার করে । উক্ত ঘটনায় ৩ জন পুলিশ সদস্যসহ উভয় পক্ষের ৮/৯ জন করে কমপক্ষে ২০ আহত হয়েছে। তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে ছুটে যান ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফরহাদ সরদার ও ভোলা সদর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এনায়েত হোসেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফরহাদ সরদার সাথে সাথে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত চিকিৎসা করার নির্দেশ দেন।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফরহাদ সরদার সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাটি শোনার সাথে সাথে আমরা সেখানে অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। অত্র এলাকার পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে। পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

Facebook Comments

Share Option

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2020 ভোলা প্রতিদিন
Design & Developed BY ThemesBazar.Com